Home / ক্যাম্পাস / বিসিএস শিক্ষা সমিতির জরুরি সভা শুক্রবার

বিসিএস শিক্ষা সমিতির জরুরি সভা শুক্রবার

ক্যাম্পাস প্রতিনিধি  :   বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে সাধারণ সভা আহ্বান করা হয়েছে। সমিতির বিদায়ী কমিটির সভাপতি ও ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) সকাল ১০ টায় বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ আ.ন.ম নজিব উদ্দিন খান খুররম অডিটোরিয়ামে এ সভা অনুষ্ঠিত হবে।

বিজ্ঞপ্তির আলোচ্যসূচিতে নির্বাচনের সুনির্দিষ্ট তারিখ ঘোষণা, নির্বাচন কমিশন গঠন ও বিবিধ বিষয় হিসেবে রাখা হয়েছে। অন্যদিকে, জরুরি সাধারণ সভাকে কেন্দ্র করে রাজধানী এবং দেশের বিভিন্ন কলেজগুলোতে প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সমিতির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী দুই বছর মেয়াদে সমিতির সর্বশেষ নির্বাচন হয়েছিল ২০১৬ সালের জুন মাসে। সেই হিসেবে কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে।

গঠনতন্ত্রের ধারা-৮ উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ‘দায়িত্ব নেওয়ার দিন থেকে দুই বছর বিশেষ অবস্থার পরিবর্তে নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব না হলে ২ (দুই) মাস করে দুই দফা সর্বোচ্চ ৪ (চার) মাস নির্বাচন পেছানোর সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় কমিটি নিতে পারবে। সর্বোচ্চ চার মাস উত্তীর্ণ হলে কেন্দ্রীয় কমিটি আপনা আপনি বিলুপ্ত হবে। পরবর্তী ১৫ (পনের) দিনের মধ্যে সভাপতি সাবেক কেন্দ্রীয় কমিটির সভা আহ্বান করবেন এবং সে সভায় সর্বোচ্চ ২০ (বিশ) সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন করবেন। আহ্বায়ক কমিটি সর্বোচ্চ তিন মাসের মধ্যে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবে। তবে, আহ্বায়ক কমিটি গঠনের দিন থেকে সর্বোচ্চ ছয় মাসের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্পন্ন করবে। বিশেষ পরিস্থিতিতে সাধারণ সভা আহ্বান করা না গেলে জরুরি সাধারণ সভায় সিদ্ধান্ত নিতে হবে।’

তবে, ওমিক্রণ সংক্রমণ বিবেচনা এবং সংগঠনের গঠনতন্ত্রের ব্যত্যয় ঘটিয়ে একতরফা এবং অবৈধভাবে ভোটার তালিকা প্রণয়নের উদ্যোগ নেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে জরুরি সাধারণ সভা আহ্বান করা হয়েছে বলেও জানানো হয়।

শুক্রবারের মধ্যে ওই সভায় বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির সাবেক মহাসচিব অধ্যাপক মো. মাসুমে রব্বানী খান, স্বাধীনতা বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সংসদের আহ্বায়ক অধ্যাপক মো. নাসির উদ্দিন ও সদস্য সচিব সৈয়দ জাফর আলীসহ সিনিয়র নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

সংগঠনটির আগের কমিটির একাধিক সিনিয়র নেতা জানান, দীর্ঘ তিন বছর সমিতির নির্বাচিত নেতৃত্ব না থাকায় ক্যাডারের সব দাবি-দাওয়া মুখ থুবড়ে পড়েছে। শিক্ষা ক্যাডারের নানা দাবি পূরণ ও বৈষম্য নিরসনে নতুন নেতৃত্ব দরকার। এজন্য নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব তৈরি এখন সময়ের দাবি।

সাধারণ সভাকে কেন্দ্র করে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে শিক্ষকরা ঢাকা কলেজে আসবেন। এ উপলক্ষে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে ঢাকা কলেজ প্রশাসন।

বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির নির্বাচিত কমিটির সর্বশেষ সেমিনার সচিব ও ঢাকা কলেজ শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক ড. মো.আব্দুল কুদ্দুস সিকদার বলেন, সভাকে কেন্দ্র করে ঢাকা কলেজে সবধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। দায়িত্ব বন্টনের অংশ হিসেবে আপ্যায়ন উপ-কমিটি, শৃঙ্খলা উপ-কমিটিসহ বিভিন্ন কমিটি গঠন করা হয়েছে। আশা করছি, উৎসবমুখর পরিবেশে সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবে এবং পরবর্তীতে সাংবিধানিকভাবে নির্বাচনের মধ্যমে সমিতির তার যোগ্য নেতৃত্ব পাবে।

এবিষয়ে বিদায়ী কমিটির সভাপতি অধ্যাপক আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার বলেন, বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডার সংখ্যায় বৃহত্তর হলেও পূর্ণাঙ্গ কমিটির না থাকায় কর্মকর্তারা নানা ধরনের সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। প্রত্যাশা করি, এ সাধারণ সভার মাধ্যমে পরবর্তী নির্বাচনের যোগ্য নেতৃত্বের বের হয়ে আসবে। দীর্ঘ সময় ধরে এমন অচলাবস্থা চলতে পারে না।

Check Also

ঢাবি ছাত্রলীগের হল কমিটি ঘোষণা

ক্যাম্পাস প্রতিনিধি  :  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ১৮টি আবাসিক হলের আংশিক কমিটি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। হলগুলোর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x