Home / ফটো গ্যালারি / চা কেন পান করবেন?

চা কেন পান করবেন?

চা পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না বোধ হয়। ক্লান্তি দূর করার পাশাপাশি চায়ের রয়েছে নানান গুণ। প্রতিদিন ঠিকমতো পান করলে শরীরের অনেক উপকার করে। ছবি: সংগৃহীত

চা পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না বোধ হয়। ক্লান্তি দূর করার পাশাপাশি চায়ের রয়েছে নানান গুণ। প্রতিদিন ঠিকমতো পান করলে শরীরের অনেক উপকার করে। ছবি: সংগৃহীত

সকালে ঘুম ভেঙে বা সন্ধ্যার আড্ডায়, পাড়ার দোকানে রাজনৈতিক আলোচনায় বা অফিসে কাজের ফাঁকে, এক কাপ চা ছাড়া যেন সবকিছুই অসম্পূর্ণ। ছবি: সংগৃহীত

সকালে ঘুম ভেঙে বা সন্ধ্যার আড্ডায়, পাড়ার দোকানে রাজনৈতিক আলোচনায় বা অফিসে কাজের ফাঁকে, এক কাপ চা ছাড়া যেন সবকিছুই অসম্পূর্ণ। ছবি: সংগৃহীত

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, একজন প্রাপ্তবয়স্কের দিনে কমপক্ষে ২ থেকে ৩ কাপ চা পান করা উচিত। বয়স ধরে রাখতে ও শরীরকে চনমনে রাখতে এর জুড়ি মেলা ভার। তবে খালি পেটে অবশ্যই চা পান করা উচিত নয়। ছবি: সংগৃহীত

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, একজন প্রাপ্তবয়স্কের দিনে কমপক্ষে ২ থেকে ৩ কাপ চা পান করা উচিত। বয়স ধরে রাখতে ও শরীরকে চনমনে রাখতে এর জুড়ি মেলা ভার। তবে খালি পেটে অবশ্যই চা পান করা উচিত নয়। ছবি: সংগৃহীত

টি অ্যাসোসিয়েশন অফ আমেরিকা ও ইউনাইটেড নেশনস ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচার অর্গানাইজেশন এর মতে, বিশ্বজুড়ে পানির পর সবচয়ে বেশি পান করা হয় চা। হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে, এমনকি ক্যান্সার ও ডায়াবেটিস প্রতিরোধ, স্নায়বিক সমস্যা কমাতেও সাহায্য করে চা। ছবি: সংগৃহীত

টি অ্যাসোসিয়েশন অফ আমেরিকা ও ইউনাইটেড নেশনস ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচার অর্গানাইজেশন এর মতে, বিশ্বজুড়ে পানির পর সবচয়ে বেশি পান করা হয় চা। হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে, এমনকি ক্যান্সার ও ডায়াবেটিস প্রতিরোধ, স্নায়বিক সমস্যা কমাতেও সাহায্য করে চা। ছবি: সংগৃহীত

সাধারণত তিন ধরনের চা আমরা পান করি। তবে দুধ চায়ের থেকে লিকার চা বা ব্লাক টি ও গ্রিন টি এর উপকারিতা অনেক বেশি। ভারতের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের মতে এই দুই প্রকার চা হার্টের পক্ষে খুব উপকারী। প্রাকৃিতক খনিজ উপাদানে ভরপুর এই চা পান করলে হৃদরোগের প্রবণতা কমে যায়। ছবি: সংগৃহীত

সাধারণত তিন ধরনের চা আমরা পান করি। তবে দুধ চায়ের থেকে লিকার চা বা ব্লাক টি ও গ্রিন টি এর উপকারিতা অনেক বেশি। ভারতের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের মতে এই দুই প্রকার চা হার্টের পক্ষে খুব উপকারী। প্রাকৃিতক খনিজ উপাদানে ভরপুর এই চা পান করলে হৃদরোগের প্রবণতা কমে যায়। ছবি: সংগৃহীত

অনেকেই যখন তখন চা পান করেন। আবার কেউ কেউ মনে বেড টি হলো চা পানের উপযুক্ত সময়। যদিও  বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্বাস্থ্যের পক্ষে একেবারেই ভালো নয় বেড টি। সাধারণত সকালের নাস্তার পরেই চা পানের পরামর্শ দিচ্ছেন তারা। সকালের নাস্তার অন্তত ২০ মিনিট পরে চা পান করলে তা সারাদিন চনমনে থাকতে সাহায্য করবে। ছবি: সংগৃহীত

অনেকেই যখন তখন চা পান করেন। আবার কেউ কেউ মনে বেড টি হলো চা পানের উপযুক্ত সময়। যদিও বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্বাস্থ্যের পক্ষে একেবারেই ভালো নয় বেড টি। সাধারণত সকালের নাস্তার পরেই চা পানের পরামর্শ দিচ্ছেন তারা। সকালের নাস্তার অন্তত ২০ মিনিট পরে চা পান করলে তা সারাদিন চনমনে থাকতে সাহায্য করবে। ছবি: সংগৃহীত

চা পানের আরও একটি অন্যতম বড় উপকারিতা হলো শরীরে পানির মাত্রা ঠিক থাকতে এটি সাহায্য করে। এটি হয়তো অনেকেরই অজানা। চায়ের উপকরণে ৯৯ শতাংশই পানি থাকায় তা শরীরে জলের ঘাটতিও পূরণ করে। ছবি: সংগৃহীত

চা পানের আরও একটি অন্যতম বড় উপকারিতা হলো শরীরে পানির মাত্রা ঠিক থাকতে এটি সাহায্য করে। এটি হয়তো অনেকেরই অজানা। চায়ের উপকরণে ৯৯ শতাংশই পানি থাকায় তা শরীরে জলের ঘাটতিও পূরণ করে। ছবি: সংগৃহীত

Check Also

যেসব নায়িকা শাহরুখের হাত ধরে বলিউডে এসেছেন

২০০৭ সালে ‘ওম শান্তি ওম’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন দীপিকা পাড়ুকোন। ছবিতে তার নায়ক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x