Home / আইন আদালত / ‘সব ভার্চ্যুয়াল কোর্ট খুললে সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়বে’

‘সব ভার্চ্যুয়াল কোর্ট খুললে সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়বে’

ঢাকার ডাক ডেস্ক  :     করোনার এই পরিস্থিতিতে হাইকোর্টের সব বেঞ্চ ভার্চুয়ালি খুলে দেওয়া হলে সংক্রমণ আরও বাড়বে বলে আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।

রবিবার পেট্রোবাংলা বনাম সুজাত আলী মামলার শুনানির সময় এমন আশঙ্কার কথা জানান প্রধান বিচারপতি।

সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেন, করোনার এই পরিস্থিতিতে যদি হাইকোর্টের সব বেঞ্চ ভার্চুয়ালি খুলে দেয়া হয় তাহলে প্রতিদিন অন্তত তিন হাজার লোকের সমাগম হবে। এতে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়বে।

প্রধান বিচারপতি আরও বলেন,‘ঢাকা জজ কোর্টে দেখলাম হাজার হাজার লোক। একজনের শরীরের সঙ্গে আরেকজন লেগে আছেন। আমার কাছে এ সংক্রান্ত ভিডিও এখনও আছে। আমরা কি করব? আমরা যদি এখানেও ভার্চুয়ালি সব কোর্ট ওপেন করি, আমাদের এখানেও অন্তত ডেইলি তিন হাজার লোকের সমাগম হবে। আমাদের কোর্টের ভেতরে জায়গা হয় না। মানুষ এসে ঈদগাঁ মাঠে, কোর্টের বিভিন্ন জায়গায় বসে থাকে।’

আইনজীবীদের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন রেখে প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘আমরা এখন কি করব? এখন যদি সব কোর্ট ভার্চুয়ালি ওপেন করি অন্তত প্রতিদিন তিন হাজার লোক আসবে। আমরা তো চাই কোর্ট চলুক। মানুষের আরজেন্সি আছে। জরুরি বিষয়গুলো অবশ্যই শুনব। আপনারা ঢাকা কোর্টের ভিডিও দেখলে অবাক হয়ে যাবেন। সেদিন ঢাকা কোর্টে ৫০ হাজারের মতো লোক ছিল।’

এসময় সিনিয়র আইনজীবী এ এফ হাসান আরিফ বলেন, ‘যেগুলো আমরা কাগজে দেখি, বন্ধুদের কাছে শুনি মার্কেটেও ভয়াবহ অবস্থা।’

প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘আমি তো চাই সব কোর্ট ভার্চুয়ালি চলুক। বাসায় বসে কোর্ট পরিচালনা করুক। কিন্তু লোকজন যে চলে আসে। এফিডেভিট করতে আসবে, এটা করতে আসবে, সেটা করতে আসবে। আমাদের আইনজীবীদেরও তো সাংঘাতিক অসুবিধা।

Check Also

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছ কাটা বন্ধে আইনি নোটিশ

ঢাকার ডাক ডেস্ক  :     আদালতের নির্দেশনা থাকা সত্ত্বেও ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে রেস্টুরেন্ট নির্মাণের জন্য …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *