Home / আর্ন্তজাতিক / গিনির সেনাব্যারাকে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ২০, আহত ৬০০

গিনির সেনাব্যারাকে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ২০, আহত ৬০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  :   ইকুয়েটোরিয়াল গিনিতে সেনাব্যারাকে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ২০ জন নিহত এবং ছয় শতাধিক লোক আহত হয়েছেন। রবিবার দেশটির সবচেয়ে বড় শহর বাটাতে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। খবর অ্যাসোসিয়েট প্রেসের

দুর্ঘটনার পর দেশটির প্রেসিডেন্ট তেওডোরো ওবিয়াং নিগমা এমবাছোগো রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বক্তৃতায় হতাহতদের পরিবার-পরিজনের প্রতি সমবেদনা জানান। তিনি বলেন, ‘সেনাব্যারাকের পাশে ডায়নামাইটের সংরক্ষণাগারে অবহেলার কারণেই ভয়াবহ এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।’

প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, অবহেলার কারণেই বিস্ফোরণ হয়েছে। সেনাবাহিনীর ব্যারাকে ডিনামাইট মজুত ছিল। অবহেলায় পড়েছিল এই বিস্ফোরক। আচমকা তা থেকেই বিস্ফোরণ হয়। একের পর এক বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে গোটা শহর।

কিন্তু ডিনামাইটের স্তূপে কীভাবে আগুন লাগল। কীভাবে বিস্ফোরণ হলো। কারা এর জন্য দায়ী, এ সব কিছুই জানাননি প্রেসিডেন্ট। সেনাবাহিনীর তরফেও কোনো বিবৃতি দেয়া হয়নি।

১৯৭৯ সাল থেকে গিনির প্রেসিডেন্ট ওবিয়াং। ৭৮ বছরের ওবিয়াং দেশের দ্বিতীয় প্রেসিডেন্ট। নিজের কাকাকে ক্ষমতাচ্যুত করে প্রেসিডেন্টের পদ দখল করেছিলেন তিনি।

স্থানীয় টেলিভিশনে দেখা গেছে, শয়ে শয়ে মানুষ রাস্তায় নেমে ধ্বংসস্তূপ থেকে আহতদের উদ্ধার করছেন। পিক আপ ট্রাকে করে তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। স্থানীয় হাসপাতালগুলো ভরে গিয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সকলকে রক্ত দেওয়ার অনুরোধ করেছেন।

বিস্ফোরণস্থলে সমস্ত বাড়ি ভেঙে গেছে। দু-একটি দেয়াল কোনোমতে দাঁড়িয়ে আছে। লোহার স্ট্রাকচারও ভেঙে গেছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান অনুযায়ী, মৃতের সংখ্যা সরকারি পরিসংখ্যানের চেয়ে অনেক গুণ বেশি।

Check Also

মিয়ানমারে জান্তার অভিযানে আড়াই লাখ মানুষ ঘরছাড়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  :   গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের বেসামরিক সরকারকে সরিয়ে দেশের ক্ষমতা দখল করে নেয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *