Home / বিনোদন / পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই সজলের বিয়ে

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই সজলের বিয়ে

বিনোদন ডেস্ক  :   জনপ্রিয় নাট্য অভিনেতা আব্দুন নূর সজল। বয়স ৩৬। বিয়ে করার আদর্শ সময়। নাটকে বহুবার তিনি বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন। কিন্তু বাস্তবে এখনো কারো গলায় মালা পরাননি। বাড়াচ্ছেন অপেক্ষা। তবে খুব শিগগিরই শেষ হতে চলেছে সেই অপেক্ষার পালা। সজল জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই তিনি বিয়ে করবেন।

গত বছরই পাকা কথা হয়ে গিয়েছিল। ২০২০ সালেই হয়ে যেত সজলের বিয়ে। কিন্তু মহামারি করোনা এসে ভেস্তে দেয় সব আয়োজন। নতুন বছরের প্রথম মাসেই যেহেতু দেশে করোনার ভ্যাকসিন আসা শুরু হয়েছে, তাই পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেই জীবনের নতুন অধ্যায়ের দিকে হাটবেন অভিনেতা।

সজল বলেন, ‘বিয়ে একটি আনুষ্ঠানিকতার বিষয়। অনেক মানুষের জড়ো হওয়ার বিষয়। ভ্যাকসিন যেহেতু আসতে শুরু করেছে, করোনার ঝুঁকি থেকে আমরা মুক্ত হলেই বিয়ের ঘোষণা দেব। সেটা যেকোনো সময় হতে পারে।’

কিন্তু কাকে বিয়ে করবেন এই টিভি তারকা? এই নামটি অবশ্য প্রকাশ করতে নারাজ সজল। তার মতে, ‘কিছু জিনিস ব্যক্তিগত থাকা ভালো। আমি মিডিয়ায় কাজ করি। যাকে বিয়ে করব, সে এই জগতের নাও হতে পারে। তাকে তার মতোই থাকতে দেয়া উচিত। তাই এখন কিছুই বলব না। সময় হলে সবই প্রকাশ করব।’

কাজের ক্ষেত্রে সম্প্রতি ‘সাক্ষীমানব’ নামের একটি নাটকের কাজ শেষ করেছেন সজল। সেখানে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর।

এই নাটকে দেখা যাবে, সজল বিয়েতে সাক্ষী হলেই সংসার সুখের হয়। যার কারণে সবাই হুমড়ি খেয়ে পড়ে তাকে বিয়েতে সাক্ষী করতে। শহরের নামকরা মাস্তান পর্যন্ত তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায় বিয়েতে সাক্ষী দেয়ার জন্য। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে সজলও খুলে বসেন সাক্ষী অফিস। নাটকটি ৩০ জানুয়ারি রাত ৯টায় বিটিভিতে প্রচার হবে।

এর পাশাপাশি ‘পাফড্যাডি’ নামের একটি ওয়েব সিরিজের কাজও তিনি শেষ করেছেন। সেখানে সজলের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। এছাড়া শেষ করেছেন ‘জুতা চরণবাবু’ নামের একটি টেলিফিল্মের কাজ। এখানে সজলের সহশিল্পী সারিকা সাবরিন। সব মিলিয়ে খুবই ব্যস্ততায় কাটছে অভিনেতার নতুন বছর।

Check Also

মা হচ্ছেন শ্রেয়া ঘোষাল

বিনোদন ডেস্ক  :   মা হচ্ছেন জনপ্রিয় বলিউড প্লেব্যাক গায়িকা শ্রেয়া ঘোষাল। স্বামী শিলাদিত্য মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *