Home / বিনোদন / অভিনেতা দিলুর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

অভিনেতা দিলুর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

বিনোদন ডেস্ক  :   বিশিষ্ট অভিনেতা, নাট্য পরিচালক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মজিবুর রহমান দিলুর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং জানায়, শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) সকাল ৬টা ৪৫মিনিটে রাজধানী ইউনাইটেড হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন মজিবুর রহমান দিলু।

দিলুর বড় ভাই অভিনেতা আতাউর রহমান বলেন, ‘দিলু দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ। আগে থেকেই ফুসফুসে সমস্যা ছিল। মূলত, নিউমোনিয়া অ্যাটাকে তার মৃত্যু হয়েছে। সবার কাছে দিলুর জন্য দোয়া চাই। ’

দিলুকে বনানী কবরস্থানে বাবার কবরের পাশে দাফন করা হবে বলে জানান আতাউর রহমান।

‘সংশপ্তক’ নাটকে বড় মালু চরিত্রে অভিনয় করে আলোচিত হন মজিবুর রহমান দিলু। অনেকে তাকে বড় মালু নামেই চেনেন।

দিলুর উল্লেখযোগ্য মঞ্চনাটক হচ্ছে ‘আমি গাধা বলছি’, ‘নানা রঙ্গের দিনগুলি’, ‘জনতার রঙ্গশালা’, ‘নীল পানিয়া’, ‘আরেক ফাল্গুন’, ‘ওমা কী তামাশা’ প্রভৃতি। এছাড়া বাংলাদেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় নাটক ‘তথাপি’, ‘সময় অসময়’ ও ‘সংশপ্তক’–এ অভিনয়ের মধ্য দিয়ে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেন মজিবুর রহমান দিলু।

দিলু প্রতিষ্ঠা করেছিলেন ঢাকার ড্রামা নামে একটি নাট্যগোষ্ঠী।

স্কুলে পড়ার সময়ই স্বাধিকার আন্দোলনের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানে যে মিছিলে গুলিতে আসাদ শহীদ হয়েছিলেন সেই মিছিলে ছিলেন দিলুও। ১৯৭০ সালে মেট্রিক পরীক্ষা দিয়েই যুদ্ধে চলে যান তিনি। ভারত থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে বাংলাদেশে ফিরে ঢাকায় সরাসরি রণাঙ্গনে ছিলেন তিনি। নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু ছিলেন সেকেন্ড ইন কমান্ড। সেসময় তিনি ঢাকায় কয়েকটি দুঃসাহসিক অভিযান পরিচালনা করেছিলেন।

Check Also

সুস্মিতার পথে হাটতে চান জাহারা মিতু

বিনোদন ডেস্ক  :   ২০০০ সালে মাত্র ২৫ বছর বয়সে ভরা যৌবনে বিয়ে না করে উল্টো …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *