Home / আর্ন্তজাতিক / সকালে ঘুম থেকে না উঠলে শাস্তি দেবে চীনের বিশ্ববিদ্যালয়

সকালে ঘুম থেকে না উঠলে শাস্তি দেবে চীনের বিশ্ববিদ্যালয়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  :   চীনের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের সকালে ওঠার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নতুন এই নির্দেশনা না মানলে তাদের শাস্তি ভোগ করতে হবে। ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী, স্নাতকের শিক্ষার্থীদের অবশ্যই সকাল ৮টায় ঘুম থেকে উঠতে হবে। তবে যারা স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী তারা এক ঘণ্টা বেশি ঘুমানোর সময় পাবেন। বিভিন্ন ডরমিটরির দায়িত্বে থাকা লোকজন ঘুরে দেখবেন যে, কেউ এই নিয়ম ভঙ্গ করছেন কিনা। নিয়ম ভাঙলেই পেতে হবে শাস্তি।

সাংহাই ইউনিভার্সিটিতে এই নিয়ম জারি করা হয়েছে। সেখানে স্নাতক স্তরে পড়াশোনা করছে অন্তত ২০ হাজার শিক্ষার্থী এবং স্নাতকোত্তরে ১৬ হাজার ৫শ জন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন নিয়ম অনুযায়ী, শিক্ষার্থীদের প্রতিদিন ঠিক সময়ে ঘুম থেকে উঠতে হবে। এছাড়া নিজের বিছানা ছাড়া অন্য কোনো শিক্ষার্থীর বিছানা খালি থাকলেও সেখানে ঘুমনো যাবে না। নতুন জারি করা নিয়ম ভঙ্গ করলে সোস্যাল ক্রেডিট অ্যাকাউন্টের বিহ্যাভিয়ার পয়েন্ট থেকে ১৫ পয়েন্ট কাটা যাবে। আর এভাবে পয়েন্ট কমে গেলে শিক্ষার্থীদের স্কলারশিপ পেতে অসুবিধা হবে।

অনেক শিক্ষার্থী বলছেন, প্রজেক্ট শেষ করতে তাদের রাতে অনেকক্ষণ জেগে থাকতে হয়। ফলে সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠা তাদের জন্য শাস্তি। তারা নতুন নিয়ম নিয়ে রীতিমত আতঙ্কিত।

এদিকে, সাংহাই বিশ্ববিদ্যালয়ের এই নতুন নিয়ম নিয়ে বেশ সমালোচনাও হচ্ছে। চীনের সামাজিক মাধ্যম ওয়েইবো ব্যবহারকারীরা বিভিন্ন পোস্টের মাধ্যমে নিজেদের মতামত ব্যক্ত করেছেন।

এক ব্যবহারকারী বলেছেন, আমি এর সঙ্গে একমত নই। একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উদার এবং সহনশীল হওয়া উচিত। এটি এমন কোনো জায়গা নয় যেখানে এতো ধরনের নিয়ম-কানুন থাকবে। প্রত্যেকের জীবনযাত্রাই আলাদা। তাই সবাইকে এক মানদণ্ডে বিচার করা উচিত নয়।

অন্য এক ব্যবহারী লিখেছেন, এটা কি বিশ্ববিদ্যালয় নাকি কারাগার? তবে অনেক শিক্ষার্থীই নতুন এই নিয়মকে সমর্থন করেছেন। এক শিক্ষার্থী এ বিষয়ে বলেছেন, নতুন এই নিয়ম তার এবং তার সহপাঠীদের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী হবে।

Check Also

তাইওয়ানে ১৮০ কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রি অনুমোদন যুক্তরাষ্ট্রের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  :   তাইওয়ানের কাছে ১৮০ কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রির অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রশাসনের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *