Home / অর্থনীতি / লভ্যাংশ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত জানিয়েছে ৭ প্রতিষ্ঠান

লভ্যাংশ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত জানিয়েছে ৭ প্রতিষ্ঠান

অর্থনীতি ডেস্ক :  পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সাতটি কোম্পানি গত সপ্তাহে লভ্যাংশ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত জানিয়েছে। ২০১৯ সালের ৩০ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাব বছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে লভ্যাংশের এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিষ্ঠানগুলোর পরিচালনা পর্ষদ।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে- ফিনিক্স ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, ফিনিক্স ইন্স্যুরেন্স, পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্স, ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্স, ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্স, এশিয়া প্যাসেফিক ইন্স্যুরেন্স ও বাটা সু।

ফিনিক্স ফাইন্যান্সের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের ৬ শতাংশ নগদ ও ৬ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগের বছর ১৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দিয়েছিল কোম্পানিটি।

ফিনিক্স ইন্স্যুরেন্সের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আগের বছরও কোম্পানিটি ১২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল।

পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আগের বছর কোম্পানিটি ১২ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দিয়েছিল।

ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্সের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আগের বছরও কোম্পানিটি থেকে শেয়ারহোল্ডরার ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ পেয়েছিল।

ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্সের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের ৫ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগের বছর কোম্পানিটি থেকে শেয়ারহোল্ডাররা ৭ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ হিসেবে পেয়েছিল।

এশিয়া প্যাসেফিক জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আগের বছরও কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল।

বাটা সু’র পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের চূড়ান্ত লভ্যাংশ না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে অন্তর্বর্তীকালীন ১২৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছিল কোম্পানিটি। সে হিসাবে ২০১৯ সালের সামাপ্ত বছরে কোম্পানিটির শেয়ারহোল্ডাররা সবমিলিয়ে ১২৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ পাবে। আগের কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডাদের ২৪০ শতাংশ অন্তর্বর্তীকালীন নগদ লভ্যাংশসহ মোট ৩৪৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল।

Check Also

করোনার অর্থবছরেও মাথাপিছু আয় বেড়েছে ১৫৫ ডলার

অর্থনীতি ডেস্ক :  করোনার প্রভাব বিশ্বের সর্বত্র। তারপরও সদ্যবিদায়ী ২০১৯-২০ অর্থবছরে দেশে মাথাপিছু আয় বেড়েছে। বর্তমানে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *