Home / আইন আদালত / ই-মেইলের মাধ্যমে করা যাবে চেক ডিজঅনার মামলা

ই-মেইলের মাধ্যমে করা যাবে চেক ডিজঅনার মামলা

ঢাকার ডাক ডেস্ক  :     দেশব্যাপী করোনা সংক্রমণ রোধে ১০ মে থেকে ভার্চুয়াল আদালত পরিচালিত হচ্ছে। ভার্চুয়াল আদালতে চলছে জামিন শুনানি। ন্যায়বিচারের স্বার্থে এখন থেকে ই-মেইলের মাধ্যমে চেক ডিজঅনারের (এনআইএক্ট) মামলার ফাইলিং গ্রহণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ও চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত। চেক ডিজঅনারের মামলার ফাইলিং প্রত্যেক আমলি আদালতে (যে থানা এলাকায় অপরাধ সংঘটিত হয়েছে) ই-মেইলের মাধ্যমে ফাইলিং করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। পরবর্তীতে আদালতের আদেশ প্রাপ্তি সাপেক্ষে ফৌজদারি কার্যবিধি ২০০ ধারার বাদীর জবানবন্দি দেয়া যাবে।

বৃহস্পতিবার (৪ জুন) ঢাকা আইজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হোসেন আলী খান হাসান স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে ঢাকা আইনজীবী সমিতি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দেশব্যাপী করোনা সংক্রমণ রোধে ১০ মে থেকে ভার্চুয়াল আদালত পরিচালিত হচ্ছে। চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ও চিফ জুড়িসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের সম্মতিক্রমে এনআইএক্ট এর ৩৮ ধারা মামলার ক্ষেত্রে ফাইলিং গ্রহণ করতে সম্মতি হয়েছে। ন্যায়বিচারের স্বার্থে ওই আইনের মামলার ফাইলিং প্রত্যেক আমলি আদালতে ই-মেইলের মাধ্যমে ফাইলিং করার জন্য অনুরোধ করা হলো। পরবর্তীতে আদালতের আদেশ প্রাপ্তি সাপেক্ষে ফৌজদারি কার্যবিধি ২০০ ধারার বাদীর জবানবন্দি দেয়া যাবে।

এ বিষয় ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হোসেন আলী খান হাসান বলেন, ই-মেইলের মাধ্যমে চেক ডিজঅনার মামলার ফাইলিং করার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে অনুরোধ করা যাচ্ছে। পরবর্তীতে আদালতের আদেশ প্রাপ্তি সাপেক্ষে ফৌজদারি কার্যবিধি ২০০ ধারার বাদীর জবানবন্দি দেয়া যাবে।

mamla

ঢাকা আইনজীবী সমিতির গ্রন্থাগার বিষয়ক সম্পাদক মো. আতাউর রহমান খান রুকু বলেন, আজ চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ও চিফ জুড়িসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত চেক ডিজঅনার মামলার ফাইল গ্রহণের জন্য সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন। ভুক্তভোগীরা এখন থেকে ই-মেইলের মাধ্যমে মামলার ফাইলিং করতে পারবেন।

অপর্যাপ্ত তহবিল, ত্রুটিপূর্ণ স্বাক্ষর ও অন্য যে কোনো যথাযথ কারণে বাহক কর্তৃক সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে জমা দেয়া চেক যদি প্রত্যাখ্যাত হয় বা চেকে উল্লেখিত টাকা বাহককে প্রদান করা সম্ভব না হয় সেটিকেই বলা হয় চেক ডিজঅনার।

কোনো কারণে চেক ডিজঅনার হলে চেক প্রদানকারীর বিরুদ্ধে হস্তারযোগ্য দলিল আইন, ১৮৮১ (Negotiable Instrument Act, 1881) অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের সুযোগ রয়েছে।

Check Also

৩ দিনের রিমান্ডে ডা. সাবরিনা

ঢাকার ডাক ডেস্ক  :     করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা না করেই রিপোর্ট ডেলিভারি দেয়ার অভিযোগে গ্রেফতার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *