Home / ফটো গ্যালারি / মাস্কের উপর থেকেই দেখা যাবে আপনার মুখের ছবি

মাস্কের উপর থেকেই দেখা যাবে আপনার মুখের ছবি

করোনা আতঙ্কের আবহে এখন একটি অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রী হয়ে উঠেছে মাস্ক। দেশের যুব সমাজের কাছে ফ্যাশন স্টেটমেন্টও বটে!

করোনা আতঙ্কের আবহে এখন একটি অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রী হয়ে উঠেছে মাস্ক। দেশের যুব সমাজের কাছে ফ্যাশন স্টেটমেন্টও বটে!

কিছুদিন আগেই বিয়ের গয়না হিসাবে খবরের শিরোনামে উঠে এসেছে ভারতে রুপার তৈরি মাস্কের কথা। এবার ক্রেতার মুখের ছবি দিয়েই তৈরি হচ্ছে মাস্ক। মুখ মাস্কে ঢাকা থাকলেও দূর থেকে দেখে তা কোনোভাবেই বোঝার উপায় নেই!

কিছুদিন আগেই বিয়ের গয়না হিসাবে খবরের শিরোনামে উঠে এসেছে ভারতে রুপার তৈরি মাস্কের কথা। এবার ক্রেতার মুখের ছবি দিয়েই তৈরি হচ্ছে মাস্ক। মুখ মাস্কে ঢাকা থাকলেও দূর থেকে দেখে তা কোনোভাবেই বোঝার উপায় নেই!

কেরালার এক ফোটোগ্রাফার তৈরি করেছেন এমন অদ্ভুত মাস্ক। মাস্ক পরা থাকলেও অনায়াসেই চেনা যাবে আপনাকে! তাই অল্প সময়ের মধ্যেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এই প্রিন্টেড মাস্ক।

কেরালার এক ফোটোগ্রাফার তৈরি করেছেন এমন অদ্ভুত মাস্ক। মাস্ক পরা থাকলেও অনায়াসেই চেনা যাবে আপনাকে! তাই অল্প সময়ের মধ্যেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এই প্রিন্টেড মাস্ক।

কেরালার কোট্টায়াম শহরের ফোটোগ্রাফার বিনেশ পাল প্রায় ৫৫ বছরের পারিবারিক ব্যবসা সামলাচ্ছেন। মূলত বিয়ের ছবি তোলার অর্ডার থেকেই আয় হত। বিনেশ নিজের স্টুডিওতেই ক্রেতার অর্ডার অনুযায়ী তৈরি করে দিচ্ছেন এই মাস্ক।

কেরালার কোট্টায়াম শহরের ফোটোগ্রাফার বিনেশ পাল প্রায় ৫৫ বছরের পারিবারিক ব্যবসা সামলাচ্ছেন। মূলত বিয়ের ছবি তোলার অর্ডার থেকেই আয় হত। বিনেশ নিজের স্টুডিওতেই ক্রেতার অর্ডার অনুযায়ী তৈরি করে দিচ্ছেন এই মাস্ক।

বিনেশ জানিয়েছেন, এক একটি মাস্ক প্রিন্ট করতে সময় লাগছে মাত্র ১৫ মিনিট। দামও মাত্র ৬০ টাকা। তাই সব বয়সের ক্রেতার বিপুল অর্ডারের চাপ হাসি মুখেই সামলাচ্ছেন তিনি।

বিনেশ জানিয়েছেন, এক একটি মাস্ক প্রিন্ট করতে সময় লাগছে মাত্র ১৫ মিনিট। দামও মাত্র ৬০ টাকা। তাই সব বয়সের ক্রেতার বিপুল অর্ডারের চাপ হাসি মুখেই সামলাচ্ছেন তিনি।

Check Also

সুনীল শেটিকে যে কারণে অবহেলা করেছিল বলিউড

ভবিষ্যতে বাবার হোটেল-ব্যবসায়ে যোগ দেবেন, পরিকল্পনা ছিল সে রকমই। তাই স্কুলজীবনের পরে হোটেল ম্যানেজমেন্ট কোর্স …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *