Breaking News
Home / খেলাধুলা / লকডাউনের পর অবশেষে মাঠে ফিরল ক্রিকেট

লকডাউনের পর অবশেষে মাঠে ফিরল ক্রিকেট

স্পোর্টস ডেস্ক  :    করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় আড়াই লকডাউনে থাকার পর বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো ক্রিকেট মাঠে ফিরেছেন খেলোয়াড়রা। ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের ব্যক্তিগত অনুশীলন পরিকল্পনায় আওতায় বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো অনুশীলন করেছেন ইংল্যান্ডের দুই পেসার স্টুয়ার্ট ব্রড এবং ক্রিস ওকস।

তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুশীলনের কারণে দুজনকে নামতে হয়েছে দুই মাঠে। ব্রড গিয়েছিলেন নটিংহ্যামের ট্রেন্টব্রিজ ও ওকস নেমেছেন বার্মিংহ্যামের এজবাস্টন স্টেডিয়ামে। স্কাই স্পোর্টসকে ওকস নিশ্চিত করেছেন তার মাঠে ফেরার কথা।

ইসিবির এ অভিনব অনুশীলন পরিকল্পনার আওতায় নেয়া হয়েছে ১৮ জন পেসারকে। তাদের ভিন্ন ভিন্ন সময়ে ৭টি ভিন্ন স্টেডিয়ামে ব্যক্তিগত পর্যায়ে অনুশীলন করানো হবে। বোলারদের অনুশীলন ঠিকঠাক চললে দুই সপ্তাহ পর আনা হবে ব্যাটসম্যানদের।

যেহেতু সংবাদমাধ্যমের প্রবেশাধিকার রাখা হয়নি, তাই খেলোয়াড়দের নিজেদের করা ভিডিওই ছিল একমাত্র ভরসা। সে কাজটি বেশ ভালোভাবেই করেছেন ব্রড ও ওকস। ট্রেন্টব্রিজের সেন্টার উইকেটে তার বোলিংয়ের ছোট্ট একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন সবার সঙ্গে।

broad-2.jpg

অনুশীলন শুরুর আগে একটি ডিজিটাল থার্মোমিটার দিয়ে নিজের দেহের তাপমাত্রা মেপেই ঘর থেকে বের হয়েছিলেন ব্রড। সেই ছবিও তিনি শেয়ার করেছিলেন ভক্তদের সঙ্গে। এরপর নিজের ট্রেনিং কিট ভালোভাবে স্যানিটাইজ করে মাঠের উদ্দেশ্যে বের হন ব্রড। মাঠেও তার জন্য ছিল নির্দিষ্ট পার্কিং স্পেস। প্রত্যেক খেলোয়াড়ের জন্যই থাকবে এমন।

করোনার ঝুঁকি এড়াতে ইসিবির পক্ষ থেকে প্রত্যেক পেসারকে দেয়া হয়েছে ব্যক্তিগত বল। বৃহস্পতিবার নিজের সেটের বল দিয়েই সেন্টার উইকেটে অনুশীলন করেছেন ব্রড। যেখানে ছিল না কোন ব্যাটসম্যান কিংবা উইকেটরক্ষক। তবে একজন ফিজিওথেরাপিস্ট তার দেখভাল করার জন্য উপস্থিত ছিলেন।

নিজের বোলিংয়ের ভিডিও শেয়ার করে ব্রড লিখেছেন, ‘এ জিনিসটা (মাঠে অনুশীলন) বাস্তবে রূপ দিতে যে আরও কত কিছু করতে হয়েছে, তা আড়ালেই চলে গেছে। ইসিবি এবং ট্রেন্টব্রিজ মাঠের সবাইকে ধন্যবাদ। আমি সত্যিই এটাকে সাধুবাদ জানাই। আবার মাঠে ফিরে বোলিং করতে পারার অনুভূতি অতুলনীয়।

Check Also

ধোনির অবসরের গুজবে মেজাজ হারালেন স্ত্রী

স্পোর্টস ডেস্ক  :    অবসর নিয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি- এমন গুজব ছড়িয়ে পড়েছিল ভারতের সামাজিক যোগাযোগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *