Breaking News
Home / আর্ন্তজাতিক / পশ্চিমবঙ্গে এক হাজার কোটি রুপি সহায়তা ঘোষণা মোদির

পশ্চিমবঙ্গে এক হাজার কোটি রুপি সহায়তা ঘোষণা মোদির

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  :   ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তাণ্ডবের পর শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গ পরিদর্শনে গেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আম্ফানের ভয়াবহতা দেখার পর পশ্চিমবঙ্গকে এক হাজার কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

পশ্চিমবঙ্গে ব্যাপক তাণ্ডব চালিয়েছে ঘূর্ণিঝড় আম্ফান। সেখানে এখন পর্যন্ত ৮০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

পশ্চিমবঙ্গ সফরে প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এবং রাজ্যপাল জগদ্বীপ ধনকর। হেলিকপ্টারে করে পশ্চিমবঙ্গের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেছেন মোদি। প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, এই দুর্যোগে পশ্চিমবঙ্গের পাশে আছে কেন্দ্রীয় সরকার।

উত্তর ২৪ পরগণার বসিরহাট জেলা পরিদর্শনের সময় মোদি বলেন, পশ্চিমবঙ্গকে এক হাজার কোটি রুপি আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে। এই অর্থ পুনর্বাসন এবং পুনর্নির্মাণের পেছনে ব্যয় হবে।

তিনি বলেন, আমরা সবাই চাই পশ্চিমবঙ্গ এই অবস্থা থেকে ঘুরে দাঁড়াক। এই কঠিন পরীক্ষার সময় কেন্দ্রীয় সরকার সব সময় পশ্চিমবঙ্গের পাশে থাকবে। আমরা সবাই এক সঙ্গে কাজ করে পশ্চিমবঙ্গের আগের অবস্থায় ফিরে যেতে সহায়তা করব।

বুধবার পশ্চিমবঙ্গে ভয়াবহ তাণ্ডব চালিয়েছে আম্ফান। ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে হাজার হাজার ঘর-বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, বিদ্যুৎ এর খুঁটি, গাছ ভেঙে পড়েছে।

শুক্রবার সকাল ১১ টায় পশ্চিমবঙ্গে পৌঁছান মোদি। সে সময় তাকে স্বাগত জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং জগদ্বীপ ধনকর। সে সময় প্রত্যেকের মুখেই মাস্ক পরা ছিল।

গত ২৯ ফেব্রুয়ারি উত্তর প্রদেশের প্রয়াগরাজ এবং চিত্রকূটে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। করোনাভাইরাসের কারণে এরপর তিনি আর কোথাও সফরে যাননি। অবশেষে ৮৩ দিন পর রাজধানী দিল্লির বাইরে পা রাখলেন মোদি।

এর আগে বৃহস্পতিবার একাধিক টুইট বার্তায় প্রধানমন্ত্রী মোদি জানান, পুরো দেশ পশ্চিমবঙ্গের সাথে আছে। তিনি বলেন, ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যের ক্ষেত্রে কোনও কার্পণ্য করা হবে না।

Check Also

চীন-মার্কিন বাণিজ্য যুদ্ধের আগুনে ঘি ঢালছে করোনা?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  :   করোনাভাইরাস মহামারিতে থমকে যাওয়া বিশ্বে থেমে নেই চিরবৈরী দুই পরাশক্তি চীন-যুক্তরাষ্ট্রের চিরচেনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *