Friday , September 20 2019
Home / খেলাধুলা / একাই চার গোল করলেন রোনালদো, উড়ে গেলো প্রতিপক্ষ

একাই চার গোল করলেন রোনালদো, উড়ে গেলো প্রতিপক্ষ

স্পোর্টস ডেস্ক :  ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো মাঠে নামবেন, আর গোল বন্যা বয়ে যাবে না, তেমন ম্যাচ খুব কমই দেখা গেছে। মঙ্গলবার রাতে তেমন দৃশ্য আরও একবার দেখা গেলো। ইউরো বাছাইয়ে লিথুনিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল রোনালদোর পর্তুগাল। ওই ম্যাচে একাই চার গোল করলেন সিআর সেভেন। লিথুনিয়াকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে রোনালদোরা।

শুধুমাত্র দেশের হয়েই আট নম্বর হ্যাটট্রিক করলেন রোনালদো। সব মিলিয়ে ক্যারিয়ারে এটা তার ৫৪ নম্বর হ্যাটট্রিক। জাতীয় দলের হয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবলে এ নিয়ে ৯৩তম গোল করে ফেললেন সিআর সেভেন। প্রথম ইউরোপীয় হিসেবে ৯০ প্লাস গোল করলেন রোনালদো। এটা ছিল ৩৪ বছর বয়সী রোনালদোর ১৬১তম আন্তর্জাতিক ম্যাচ।

লিথুনিয়ার মাঠেই খেলতে গিয়েছিল রোনালদোরা। সেখানে ম্যাচের সপ্তম মিনিটেই গোল পেয়ে যায় পর্তুগিজরা। পেনাল্টি থেকে গোল করে নিজের দেশকে এগিয়ে দেন রোনালদো। ডি-বক্সে ডিফেন্ডার পলিওনিসের হাতে বল লাগলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পট কিক থেকে গোল করতে ভুল করলেন না পর্তুগিজ সুপারস্টার। সে সঙ্গে দেশের জার্সিতে আন্তর্জাতিক ফুটবলে ৯০ নম্বর গোলটি করে ফেলেন তিনি।

প্রথমার্ধের বাকি সময়ে তার পা থেকে আর কোনো গোল এলো না। বরং, ২৮ মিনিটে স্বাগতিক লিথুনিয়া পেনাল্টি থেকে রোনালদোর করা গোলটি শোধ করে। কর্নার থেকে ভেসে আসা বলে ভিতোতাসের হেড পোস্টের ভেতরের কানায় লেগে পর্তুগালের জালে জড়িয়ে যায়।

প্রথমার্ধের শেষ দিকে একের পর এক আক্রমণ করেও গোলের দেখা পায়নি পর্তুগিজরা। রোনালদো এবং ব্রুনো আলভেসের শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ার পর কারভালহোর হেডও ঠিকানা খুঁজে পায়নি।

প্রথমার্ধে আর কোনো গোল না পেলেও দ্বিতীয়ার্ধে ১৬ মিনিটের ব্যবধানে তিন-তিনটি গোল করে লিথুনিয়াকে একাই শেষ করে দেন পর্তুগিজ সুপার স্টার। ৫৭ মিনিটে বার্নার্ডো সিলভা সুযোগ পেয়েছিলেন পর্তুগালকে এগিয়ে দেয়ার। কিন্তু গোলরক্ষক বরাবর শট নেওয়ায় আর গোল হলো না।

Ronaldo

৬১ মিনিটে আবারও লিড নেয় পর্তুগাল। গোলদাতা রোনালদো। তার শট আটকাতে ঝাঁপিয়ে পড়লেও গোলরক্ষকের গ্লাভসে লেগে বল জালে জড়িয়ে যায়। এরপর বার্নার্ডোর ক্রসে গোলমুখে পা-ছুঁয়ে ৬৫ মিনিটে হ্যাটট্রিক পূরণ করে ফেলেন সিআর সেভেন।

ম্যাচের ৭৬ মিনিটে বার্নার্ডো সিলভার ক্রস থেকে ম্যাচে নিজের চতুর্থ গোলটি করেন রোনালদো। এরপরই অবশ্য সিআর সেভেনকে তুলে নেন কোচ ফার্নান্দো সান্তোস। মাঠে নামান গনকালো গুয়েদেসকে।

দ্বিতীয়ার্ধের অতিরিক্ত সময়ে উইলিয়াম কারভালহোর শট পোস্টে লেগে লিথুয়ানিয়ার জালে জড়ালে ৫ম গোলটি এসে যায় পর্তুগিজদের অ্যাকাউন্টে। শেষ পর্যন্ত ৫-১ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পর্তুগাল।

চার ম্যাচে দু’টি ড্রয়ের পর টানা দুই ম্যাচ জিতে ৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। তবে পাঁচ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে ইউক্রেন। অর্থ্যাৎ, রোনালদোরা এখনও ইউক্রেনের চেয়ে ৫ পয়েন্ট পিছিয়ে।

ম্যাচের পর রোনালদো বলেন, ‘সার্বিয়ার বিপক্ষে একটি এবং আজ লিথুনিয়ার বিপক্ষে করলাম চার গোল। আমি এভাবেই দেশের জার্সিতে গোল করে যেতে চাই।’ কোচ ফার্নান্দো সান্তোস বলেন, ‘রোনালদো হচ্ছে বর্তমান সময়ে বিশ্বের সেরা ফুটবলার। এটা একেবারে পরিস্কার এবং সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত।’

Check Also

এক বছর নিষিদ্ধ লঙ্কান স্পিনার

স্পোর্টস ডেস্ক :  আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সময়টা তার দুর্দান্তই কাটছিল। এমন সময়ে দুঃসংবাদ শুনতে হলো আকিলা ধনঞ্জয়ার। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *