Thursday , September 19 2019
Home / বিনোদন / ‘গডফাদার’ করণের জন্যই বলিউডে তারা

‘গডফাদার’ করণের জন্যই বলিউডে তারা

বিনোদন ডেস্ক :  বলিউডের সফল পরিচালক ও প্রযোজকদের অন্যতম করণ জোহার। এই জোহারের জহুরি চোখে প্রচুর তারকা পেয়েছে বলিউড। কার মধ্যে সম্ভাবনা আছে, কার নেই তা নিখুঁত দৃষ্টিতে বলিউডকে বেছে দিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি তাদের নতুন নতুন কাজের সুযোগও করে দিয়েছেন। সেসব তারকাদের কাছে করণ জোহার তাই গডফাদার।

বরুণ ধাওয়ান: করণ জোহারের প্রিয় ছাত্র বরুণ ধাওয়ান। এই পরিচালক ও প্রযোজকের ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার’, ‘হাম্পটি শর্মা কি দুলহানিয়া’, ‘বদ্রীনাথ কি দুলহানিয়া’ এবং ‘কলঙ্ক’-এর মতো ছবিগুলোতে অভিনয় করেছেন তিনি। ২০১২ সালে করণের ছবি ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার’ দিয়েই বলিউডে হাতেখড়ি হয়েছিল বরুণের।

আলিয়া ভাট: ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার’ তিন নতুন বলিউড তারকার জন্ম দিয়েছে। এক জনের কথা আগেই বলা হয়েছে। বরুণ ধাওয়ান। দ্বিতীয় জন হলেন আলিয়া ভাট এবং তৃতীয়জন সিদ্ধার্থ মালহোত্র। আলিয়া একাধিক বার স্বীকার করেছেন, করণের জন্যই তিনি আজ এই জায়গায়।

সিদ্ধার্থ মালহোত্রা: করণ জোহার এবং সিদ্ধার্থকে মাঝে মধ্যেই এক সঙ্গে দেখা যায়। কখনও ডিনারে, কখনও বা সিনেমা হলে। বিভিন্ন সময়ে পার্টিতে দুজনকে একসঙ্গে যেতে আসতেও দেখা গেছে। সিদ্ধার্থ যে করণের খুব প্রিয় ছাত্র তা আর বোঝার অপেক্ষা রাখে না। ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার’-এর পর করণের একাধিক ছবিতে সিদ্ধার্থ অভিনয়ের সুযোগও পান।

জাহ্নবী কাপুর: প্রয়াত সুপারস্টার নায়িকা শ্রীদেবী এবং প্রযোজক বনি কাপুরের মেয়ে জাহ্নবীরও বলিউডে অভিষেক হয় করণ জোহারের হাত ধরে। তার প্রথম ছবি ‘ধড়ক’ করণেই ছবি। জাহ্নবীর মা শ্রীদেবীও করণ জোহারের খুব ঘনিষ্ঠ ছিলেন। এখন সেই জায়গাটা জাহ্নবীর।

অভিষেক বর্মন: ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার’, ‘মাই নেম ইজ খান’-এর সহ পরিচালক ছিলেন অভিষেক। এরপর তার বিগ বলিউড ব্রেক ছিল ‘টু স্টেটস’। এগুলো সবই করণ জোহারের ছবি।

অয়ন মুখোপাধ্যায়: পরিচালনার পাশাপাশি ছবির চিত্রনাট্যও লেখেন অয়ন। আর এই দুটোই সম্ভব হয়েছে করণ জোহারের সঙ্গে। ‘কাভি আলভিদা না কেহেনা’ ছবিতে তাকে সহ-পরিচালনার সুযোগ করে দিয়েছিলেন করণ। করণের ছবি ‘ওয়েক আপ সিড!’-এর চিত্রনাট্য লিখেছেন তিনি। ‘ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি’-এর পরিচালনাও তিনিই করেন।

পুণিত মালহোত্রা: ফ্যাশন ডিজাইনার মণীশ মালহোত্রার ভাইপো পুণিত। মণীশ যে করণ জোহারের খুব ভালো বন্ধু, তা ইন্ডাস্ট্রির সবাই জানেন। সেই সূত্রে পুণিতের সঙ্গে পরিচয় করণের। পুণিত পরিচালক। ছবি পরিচালনার সুযোগ তাকে করণই করে দিয়েছিলেন। ‘কাভি খুশি কাভি গম’, ‘কাল হো না হো’, ‘পহেলি’ এবং ‘দোস্তানা’-এর মতো ছবিতে পুণিতকে সহ-পরিচালকের কাজ দিয়েছিলেন করণ। তার প্রযোজিত ছবি ‘আই হেট লাভ স্টোরি’-এর পরিচালনা করেছিলেন পুণিত।

শকুন বাত্রা: করণ জোহারের ‘রক অন’, ‘ডন ২’ এবং ‘জানে তু ইয়া জানে না’ ছবিগুলোতে সহকারী পরিচালক ছিলেন তিনি। এর আগে ২০১২ সালে করণ জোহার প্রযোজিত ছবি ‘এক ম্যায় অউর এক তু’-এ তাকে পরিচালনার সুযোগ করে দিয়েছিলেন। এটাই ছিল তার বলিউড ব্রেক। শোনা যাচ্ছে, করণের পরবর্তী ছবি ‘দোস্তানা ২’-ও পরিচালনা করবেন তিনি।

শশাঙ্ক খৈতান: ২০১৪ সালে ‘হাম্পটি শর্মা কি দুলহনিয়া’ ছবিতে প্রথম বলিউডে পা রাখেন শশাঙ্ক। এরপর ২০১৬ সালে আবারও করণ জোহার তাকে ‘বদ্রীনাথ কি দুলহানিয়া’ ছবিটা লেখার এবং একই সঙ্গে পরিচালনার সুযোগ দেন।

সিদ্ধার্থ পি মালহোত্রা: গডফাদারের ছোঁয়ায় আরও এক সিদ্ধার্থ উন্নতি করেছেন। তিনি পরিচালক সিদ্ধার্থ পি মালহোত্রা। করণের ছবি ‘উই আর ফ্যামিলি’-তে সিদ্ধার্থকে পরিচালনার সুযোগ করে দিয়েছিলেন করণই। রানি মুখার্জীর ‘হিচকি’ ছবিটাও তারই পরিচালিত। এই ছবিটা যশ রাজ ফিল্ম প্রোডাকশন হাউসের হলেও করণ জোহার ব্যক্তিগত ভাবে এর প্রমোশন করেছিলেন।

সোনম নায়ার: নিঃসন্দেহে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম সেরা পরিচালক করণ জোহার। জোহারের জুহুরির চোখ শুধু ভালো অভিনেতা চেনে না, ভালো পরিচালকও বেছে নেয়। করণ জোহারের ছবি ‘গিপ্পি’-তে সহকারী পরিচালক ছিলেন সোনম। গডফাদারের সংস্পর্শে থাকায় এরপর বহু ওয়েব সিরিজ এবং শর্ট ফিল্ম পরিচালনা করেছেন তিনি।

Check Also

আমি এবং আমার ছেলে দুজনই সালমান ভক্ত : প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী

বিনোদন ডেস্ক :  ঐহিত্যবাহী মধুমিতা প্রেক্ষাগৃহে ২০ থেকে ২৬ সেপ্টেম্বর সাত দিনব্যাপী চলবে সালমান শাহ জন্মোৎসব। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *