Friday , February 21 2020
Home / জাতীয় / কমতে শুরু করেছে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা

কমতে শুরু করেছে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা

ঢাকার ডাক ডেস্ক  :     চলতি বছর রাজধানীসহ সারাদেশের সরকারি, বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা কমে আসছে। চলতি বছর মোট ভর্তি রোগীদের মধ্যে প্রায় ৫৫ হাজার (৫৪,৯৫৬ জন) রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

১ জানুয়ারি থেকে আজ ২৩ আগস্ট পর্যন্ত মোট ৬১ হাজার ৩৮ জন ভর্তি হলেও বর্তমানে সারাদেশের হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন মাত্র ৬ হাজার ৩৫ জন ডেঙ্গু রোগী। তার মধ্যে রাজধানীতে ৩ হাজার ৪১১ জন ও ঢাকা বিভাগসহ অন্যান্য বিভাগীয় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ২ হাজার ৬২৪ জন। শতকরা হিসাবে ৯০ শতাংশ রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

সূত্র জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় অর্থাৎ ২২ আগস্ট সকাল ৮টা থেকে আজ ২৩ আগস্ট সকাল ৮টা পর্যন্ত সারাদেশের হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন মোট ১ বাজার ৪৪৬ জন। তাদের মধ্যে রাজধানী ঢাকার ৪১টি সরকারি, বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালে ৬৮৯ জন ও বিভাগীয় হাসপাতালে ৭৫৭ জন ভর্তি হয়েছেন।

সরকারি হিসাবে মোট ৮০টি সম্ভাব্য ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু পর্যালোচনা করে মোট ৪৭ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার নিশ্চিত তথ্য পাওয়া গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, গত ২১, ২২ ও ২৩ আগস্ট রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছে যথাক্রমে ৭১১, ৭৬১ ও ৬৮৯ জন। একই সময়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন যথাক্রমে ৭৬৪, ৭৮৯ ও ৬১০ জন। এ তিন দিনে ঢাকার বাইরে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছে যথাক্রমে ৯১৫, ৮৩৬ ও ৭৫৭ জন এবং হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন যথাক্রমে ১০৫৪, ৯৩৯ ও ৯৪৮ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, ডেঙ্গু রোগ সম্পর্কে জনসচেতনতা আগের চেয়ে বহুলাংশে বেড়েছে। সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সম্মিলিত প্রচেষ্টায় মশা নিধন কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক-নার্সসহ সংশ্লিষ্টদের আন্তরিক প্রচেষ্টার কারণে ডেঙ্গু রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরছেন। সার্বিকভাবে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা কমে এসেছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

Check Also

২১ ফেব্রুয়ারি ৭৮ হাজার স্থানে অর্ধনমিত থাকবে জাতীয় পতাকা

ঢাকার ডাক ডেস্ক  :     মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে দেশের ৭৮ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *