Home / খেলাধুলা / সাকিবের সমালোচনা, সাংবাদিকদের একহাত নিলেন স্ত্রী শিশির

সাকিবের সমালোচনা, সাংবাদিকদের একহাত নিলেন স্ত্রী শিশির

স্পোর্টস ডেস্ক :    আইপিএল খেলে আগের দিন রাতেই ঢাকায় এসেছিলেন সাকিব আল হাসান। সোমবার ছিল বিশ্বকাপগামী বাংলাদেশ দলের অফিসিয়াল ফটোসেশন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন না সাকিব। এ নিয়ে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন পর্যন্ত বলেছেন, ‘দুঃখজনক। এটা সাকিবেরই দুর্ভাগ্য।’

বিসিবিতে এসেও অফিসিয়াল ফটোসেশনে যোগ না দিয়ে চলে যাওয়ার কারণে মিডিয়ায়ও সাকিবকে নিয়ে নানা রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। তার ওপর সাকিবের এই আচরণ নিয়ে কথা বলেছেন খোদ বিসিবি সভাপতি নিজেও। সাংবাদিকদের অনেকেই তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কঠোর সমালোচনা করেছেন সাকিবের।

উম্মে আহমেদ শিশির তার ক্ষোভের কথাগুলো লেখেন ইংরেজিতেই। যার সোজা বাংলা করলে দাঁড়ায়, ‘সাংবাদিকদের নিয়ে আসলেই আমার বলার কিছু নেই, কেন তারা সাকিব আল হাসানকে এত ঘৃণা করে! আমার ধারণা, এটা আমাদেরই দোষ যে, আমরা তাদেরকে ডিনার বা লাঞ্চে দাওয়াত দিইনি কেন? কিংবা তাদের সঙ্গে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কথা বলে তোষামোদ করিনি, অথবা তাদের দলের ভেতরের খবর বলে দিইনি কেন (এ কারণে)? সাকিব জীবনের এ পর্যায়ে এসেছে কঠোর পরিশ্রম করে। ছোটবেলা থেকে সে বিকেএসপিতে পরিশ্রম করেছে, শুধু ক্রিকেটই ছিল তার ধ্যান-জ্ঞান। ক্রিকেটেই মনোযোগ দিয়েছে। সে অভিনয় শেখেনি কিংবা মানুষের সহানুভূতি নিয়ে খেলা করাও শেখেনি। এখন মনে হচ্ছে সেটা শিখলেই ভালো করত। হয়তো এ কারণেই সে খুব একটা ইতিবাচক মানুষ নয়। যাই হোক সে নিজের ভালো কাজগুলো ফুলিয়ে-ফাঁপিয়ে দেখিয়ে মানুষকে খুশি করতে চায় না এবং মানুষের আগ্রহের কেন্দ্রে থাকতে চায় না।’

সাংবাদিকদের সমালোচনা শেষ করেই মূল প্রসঙ্গে আসেন শিশির। তিনি বলেন, ‘এখন আলোচনার বিষয় হলো, সে কেন বিশ্বকাপের ফটোসেশনে ছিল না। প্রথমত সে এখানে যেতে পারেনি কিন্তু সেটা ইচ্ছে করে নয়। কারণ, তাকে যে মেসেজ পাঠানো হয়েছিল সেটা ভুল বুঝেছে সে। এর পর সে দায়িত্বপ্রাপ্তদের কাছে ক্ষমা চেয়েছে। আমরা দুঃখিত যে এ বিষয়টা প্রমাণ করার জন্য কোনো কিছু ভিডিও করে রাখিনি।’

এরপর একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের আলোচনা অনুষ্ঠানের সমালোচনা করেন শিশির। সেই টিভি চ্যানেলের নাম নিয়েই। শিশির লিখেন, ‘দ্বিতীয়ত, চ্যানেল২৪ তাদের বিয়ন্ড দ্য গ্যালারি অনুষ্ঠানে দুজন সাংবাদিক সাকিবকে নিয়ে অনেক আজেবাজে কথা বলেছেন। এর মাঝে একটি হলো, সে বিখ্যাত হওয়ার জন্য এসব করছে। আমি যদি ভুল না করি, এটাই ওর সবচেয়ে কম দরকার। এটা আসলে উল্টো, আপনারা (সাংবাদিক) ওকে নিয়ে নেতিবাচক কথা বলে বিখ্যাত হতে চাইছেন। কারণ এটাই ব্যবসা, এ ব্যবসায় এটাই সবচেয়ে লাভজনক এবং আপনাদের প্রোফাইলও ভারী হবে! যদি তার আচরণ নিয়ে প্রশ্ন থাকে তবে যে কোনো খেলোয়াড়কে ব্যক্তিগতভাবে জিজ্ঞেস করুন। মাঠ ও মাঠের বাইরে ভেতরের খবর নিন। বিশ্বকাপ এগিয়ে আসছে। তাকে তার মতো থাকতে দিন। আমার মনে হয় আরও অনেক জিনিস আছে কথা বলার জন্য।’

Check Also

এভার্টনকে গোলের মালা পরিয়ে নতুন রেকর্ড লিভারপুলের

স্পোর্টস ডেস্ক :    ৩০ বছর পর ভুলে যাওয়া ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জয়ের স্বপ্ন এবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *