Saturday , January 19 2019
Home / শীর্ষ নিউজ / সিলেটে নতুন কারাগারে বন্দি স্থানান্তর

সিলেটে নতুন কারাগারে বন্দি স্থানান্তর

সিলেট   প্রতিনিধি  :    নারী বন্দিদের স্থানান্তরের মধ্য দিয়ে শুক্রবার সকাল থেকে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে শহরতলীর বাদাঘাটে নির্মিত নতুন কারাগারে বন্দি স্থানান্তর শুরু হয়েছে।

প্রায় দুই সহস্রাধিক বন্দিকে পর্যায়ক্রমে সেখানে স্থানান্তর করা হচ্ছে। এ প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে ২৩০ বছরের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগার স্থানান্তর হচ্ছে।

কারা সূত্র জানায়, ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও র‌্যাবের প্রহরায় কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে শুক্রবার সকাল পৌনে ৭টা থেকে বন্দি স্থানান্তর প্রক্রিয়া শুরু হয়। প্রথমে প্রিজন ভ্যানে করে নারী বন্দিদের স্থানান্তর করা হয়। পরে পর্যায়ক্রমে কয়েক দফায় বন্দিদের স্থানান্তর করা হচ্ছে। শনিবার বিকেলের মধ্যে সব বন্দি সরিয়ে নেওয়া হবে।
বন্দি স্থানান্তর উপলক্ষে নতুন কারাগারসহ সংশ্লিষ্ট এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিটি সার্ভিস) মো. জেদান আল মুসা।

তিনি জানান, বন্দিদের সরানোর পুরো সময় পুরাতন কারাগার থেকে বাদাঘাটে নতুন কারাগার পর্যন্ত সড়কে নিরাপত্তার দায়িত্বে পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে।

সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার আবু সায়েম জানান, বর্তমানে কারাগারে বন্দির সংখ্যা ২ হাজার ৩০০ জন। এর মধ্যে ৫০০ জন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি এবং ১ হাজার ৮০০ জন হাজতি রয়েছেন। তাদের পর্যায়ক্রমে নতুন কারাগারে স্থানান্তর করা হচ্ছে।
১৭৮৯ সালে নগরীর ধোপাদীঘির পাড়ে ২৪ দশমিক ৬৭ একর জায়গায় তৎকালীন ব্রিটিশ রাজের প্রতিনিধি সিলেটের কালেক্টর জন উইলসন নির্মাণ করেন সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার। এতে নির্মাণ ব্যয় হয়েছিল ১ লাখ রুপি।

২৩০ বছর পর সেই কারাগার সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে নগরীর বাইরে শহরতলীর বাদাঘাট এলাকায়। নতুন কারাগারের বন্দির ধারণ ক্ষমতাও প্রায় আড়াই হাজার। রয়েছে আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধাও।

গত ১ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের দুই মাস পর বন্দি স্থানান্তর করা হলো। এটি ছিল সদ্যসাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের অগ্রাধিকার প্রকল্প।

Check Also

১৫ বিয়ে করা নুরুর জন্য সাবিনার জীবন ওলট-পালট

পঞ্চগড়   প্রতিনিধি  :    তিন সন্তানের জননী সাবিনা আক্তার (৩৪)। স্বামীর নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *