Home / রাজনীতি / ইসি ও পুলিশের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ : ফখরুল

ইসি ও পুলিশের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ : ফখরুল

ঢাকার ডাক ডেস্ক   :    আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ও পুলিশের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলাশান কার্যালয়ে দলটির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকারের মধ্য বিরতিতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন ,আমরা নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছি কিন্তু এই নির্বাচন এখনি প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে গেছে। নির্বাচন কমিশন এখন পর্যন্ত কোন দায়িত্ব পালন করছে না। আমরা দেখতে পাচ্ছি একইভাবে পুলিশ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের গ্রেফতার এবং হয়রানি করছে। জামিনের জন্য যারা যাচ্ছেন বা জামিন পাচ্ছেন তাদের জামিনে বিলম্ব করা হচ্ছে। তাদেরকে জামিনে বের হতে দেয়া হচ্ছে না।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা অতীতের নির্বাচনগুলোতে দেখেছি, পুলিশ যে ভূমিকা পালন করেছে তা ভীষণভাবে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে। আমরা জানতে পেরেছি পুলিশকে দিয়ে আবারও একইভাবে নির্বাচনে কারচুপি করার জন্য নীল নকশা তৈরি করা হচ্ছে। যে কর্মকর্তা পুলিশের সদর দফতরে বসে গতবার পরিকল্পনা করেছিলেন, সেই একই পুলিশ কর্মকতা আবারও হেডকোয়ার্টার্সে বসে নীল নকশা তৈরি করছেন যে কীভাবে সরকারের পক্ষে নিয়ে আসা যায়।

আমরা খুবই স্পষ্টভাবে বলতে চাই, নির্বাচন কমিশনের যাদের ওপর দায়িত্ব পড়েছে নির্বাচনকে সুষ্ঠু অবাধ নিরপেক্ষ করার এবং নির্বাচনের জন্য একটা লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরি করার জন্য তার কোনটায় তারা এখন পর্যন্ত পালন করছেন না।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, আমরা এ ব্যাপারে আমাদের প্রতিবাদ জানিয়েছি, লিখিতভাবে জানিয়েছি, আমরা আবারও এই বিষয়টা তুলে ধরছি, নির্বাচন কমিশন যদি সমতল ভূমি তৈরি না করে, লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরি না করে, পুলিশের গ্রেফতার বন্ধ না করে। তাহলে এই নির্বাচন জনগণের কাছে এই নির্বাচন কখনও গ্রহণযোগ্য হবে না।

তিনি বলেন ,আমরা এই নির্বাচনে অংশ নিয়েছি, নির্বাচনে যেতে চাই এবং যাচ্ছি। আমি আশা করব, নির্বাচন কমিশন বোধোদয় হবে। তারা জেগে উঠবে এবং তাদের সাংবিধানিকভাবে যে দায়িত্ব রয়েছে, যে ক্ষমতা তাদের রয়েছে- সে ক্ষমতা প্রয়োগ করে তারা তাদের দায়িত্ব পালন করবে।

Check Also

মন্ত্রিসভায় পুনঃবিন্যাস, ডা. মুরাদ স্বাস্থ্য থেকে তথ্যে

ঢাকার ডাক ডেস্ক  :    স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *