Home / রাজনীতি / ‘খালেদাকে বিনা চিকিৎসায় মারতে চাচ্ছে সরকার’

‘খালেদাকে বিনা চিকিৎসায় মারতে চাচ্ছে সরকার’

ঢাকার ডাক ডেস্ক  :    সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেছেন, ‘আদালতের নির্দেশে চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল, কিন্ত কোনো নোটিশ ছাড়াই তাকে বৃহস্পতিবার আবার কারাগারে নেয়া হয়েছে। সরকার খালেদা জিয়াকে বিনা চিকিৎসায় মেরে ফেলতে চাচ্ছে।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

চিকিৎসার জন্য হাইকোর্টের নির্দেশনা থাকার পরও খালেদা জিয়াকে হাসপাতাল থেকে পুনরায় কারাগারে ফিরিয়ে নেয়ায় আদালত অবমাননা হয়েছে বলেও দাবি করেন জয়নুল আবেদীন।

তিনি বলেন, ‘হাইকোর্টের নির্দেশে খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার সঙ্গে আজ পর্যন্ত কোনো আইনজীবীকে দেখা করতে দেয়া হয়নি। তার আত্মীয়-স্বজনরাও নিয়মিত দেখা করতে পারেননি।’

খালেদা জিয়ার আইনজীবী প্যানেলের অন্যতম সদস্য জয়নুল আবেদীন বলেন, ‘গত ৬ নভেম্বর খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করার জন্য আমরা আবেদন করেছিলাম কিন্তু আজ পর্যন্ত সে আবেদন তারা গ্রহণ করেনি। আজ সকালে খবর পেলাম, মাত্র আধা ঘণ্টার নোটিশে আদালতকে কিছুই না জানিয়ে তাকে ব্যাগ অ্যান্ড ব্যাগেজ কারাগারে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। আমরা তার আইনজীবী। আমাদের বিষয়টি জানানো উচিত ছিল।’

তিনি জানান, মূলত আদালতের নির্দেশের পর তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তাই কর্তৃপক্ষ বিষয়টি আদালতকেও অবহিত করেনি। সে রকম কোনো নোটিশ দেয়া হয়নি। এটা দুঃখজনক। এতে বিচার বিভাগের আদেশ অবজ্ঞা করা হয়েছে। সরকার এ আদেশ অবজ্ঞা করে খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠিয়েছে।

সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে জয়নুল আরও বলেন, ‘বিনা চিকিৎসায় সরকার খালেদা জিয়াকে মেরে ফেলতে চাইছে। এতে আমাদের আইনজীবীদের এবং দেশের সাধারণ মানুষের মনে উৎকণ্ঠার সৃষ্টি হয়েছে। এ অবস্থায় জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কিনা বা আদৌ নির্বাচন হবে কিনা- তা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে।’

আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকনের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সমিতির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট গোলাম মোস্তাফা, ট্রেজারার নাসরিন আখতার, সহ-সম্পাদক কাজী জয়নাল আবেদীন, অ্যাডভোকেট আহসান উল্লাহ, মাহফুজ বিন ইউসুফ, ব্যারিস্টার শফিউল মাহমুদ, ব্যারিস্টার এ কে এম এহসানুর রহমান, ব্যারিস্টার মেহেদী হাসান, সালাউদ্দিন, মো. টিপু সুলতান, আনিসুর রহমান রায়হানসহ বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

Check Also

কলেরা হাসপাতালে ধারণ ক্ষমতার তিনগুণ বেশি রোগী

ঢাকার ডাক ডেস্ক  :    রাজধানীর মহাখালীতে আন্তর্জাতিক উদারাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআর,বি) বা কলেরা হাসপাতালে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *