Tuesday , October 23 2018
Home / অর্থনীতি / আগ্রহ হারানোর তালিকায় শীর্ষ ১০টির মধ্যে ৯টিই মিউচ্যুয়াল ফান্ড

আগ্রহ হারানোর তালিকায় শীর্ষ ১০টির মধ্যে ৯টিই মিউচ্যুয়াল ফান্ড

অর্থনীতি ডেস্ক :    গত সপ্তাহে পুঁজিবাজারের বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর তালিকায় মিউচ্যুয়াল ফান্ড কোম্পানিগুলোর আধিপত্য দেখা গেছে। প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহজুড়ে দাম কমার শীর্ষ ১০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে নয়টিই মিউচ্যুয়াল ফান্ড কোম্পানি। দাম কমার শীর্ষ তালিকায় মিউচ্যুয়াল ফান্ডের এমন আধিপত্য সাম্প্রতিক সময়ে আর দেখা যায়নি।

গত সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত মেয়াদি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মেয়াদ ১০ বছর থেকে বাড়িয়ে ২০ বছর করার সিদ্ধান্ত নেয় নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এই সিদ্ধান্তের কারণেই মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ওপর এমন নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

মিউচ্যুয়াল ফান্ডর মেয়াদ বাড়ানোর সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পর এক প্রতিক্রিয়াই চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সাবেক পরিচালক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন বলেন, ১০ বছর মেয়াদি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মেয়াদ ২০ বছর যদি অনুমোদন হয়েছে। আমার মতে, মৃতপ্রায় মিউচ্যুয়াল ফান্ডের জীবিত কবর দেয়ার সামিল হবে। আরআইইউ (পুনঃবিনিয়োগ) ব্যবস্থা করে মিউচ্যুয়াল ফান্ডকে প্রায় মৃত করা হয়েছে। কারণ ফান্ড পরিচালকদের অপকর্ম ঢাকতে আইনি সহায়তা দেয়া হয়েছে। এবার মেয়াদ বাড়ালে মৃত্যু অবধারিত।

তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, গত সপ্তাহে দাম কমার তালিকায় শীর্ষ স্থান দখল করে ইবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড। বিনিয়োগকারীরা প্রতিষ্ঠানটির ইউনিট কিনতে আগ্রহী না হওয়ায় সপ্তাহজুড়েই দাম কমেছে। এতে ইউনিটের দামে বড় ধরণের পতন হয়েছে।

আর বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির ইউনিট কিনতে আগ্রহী না থাকায় সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হযেছে মাত্র ৪ লাখ ৯০ হাজার টাকা। আর প্রতি কার্যদিবসে গড় লেনদেন হয়েছে ৯৮ হাজার টাকা।

অপরদিকে ইউনিটের দাম কমেছে ১৭ দশমিক ৯৮ শতাংশ। টাকার অঙ্কে প্রতিটি ইউনিটের দাম কমেছে ১ টাকা ৬০ পয়সা। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির প্রতিটি ইউনিটের দাম দাঁড়িয়েছে ৭ টাকা ৩০ পয়সায়, যা তার আগের সপ্তাহ শেষে ছিল ৮ টাকা ৯০ পয়সা।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, এই মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির মোট ইউনিটের ২ শতাংশ রয়েছে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের হাতে। বাকি ইউনিটের মধ্যে ২৪ দশমিক ২৮ শতাংশ রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে। আর প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে আছে ৭৩ দশমিক ৭২ শতাংশ।

এদিকে শেষ সপ্তাহে ইবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের পরেই বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর তালিকায় ছিল ট্রাস্ট ব্যাংক ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড। সপ্তাহজুড়ে এই মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দাম কমেছে ১৭ দশমিক ২৪ শতাংশ। এর পরেই রয়েছে এবি ব্যাংক ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড। সপ্তাহজুড়ে এই মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির দাম কমেছে ১৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ।

এ ছাড়া শেষ সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় থাকা পিএসচপি ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ১৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ, ফার্স্ট জনতা ব্যাংক মিউচ্যুয়াল ফান্ড ১৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ, শীর্ষ তালিকায় স্থান করে নেয়া একমাত্র কোম্পানি শ্যামপুর সুগার মিলস’র ১৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ, আইএফআইসি ব্যাংক ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ১৫ দশমিক ৩৮ শতাংশ, ইবিএল এনআরবি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ১৫ দশমিক ২৫ শতাংশ, এক্সিম ব্যাংক ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ১৪ দশমিক ৯৩ শতাংশ এবং পপুলার লাইফ ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ১৩ দশমিক ৪৬ শতাংশ দাম কমেছে।

Check Also

বছরের সর্বোচ্চ দরপতন

>> দুই বছর আগের অবস্থানে ডিএসইএক্স >> দর হারিয়েছে সিংহভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার-ইউনিট >> চট্টগ্রাম স্টক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *