Friday , December 14 2018
Home / ফটো গ্যালারি / সুস্বাস্থ্যের জন্য জেনে নিন ডাবের পানির ১০ উপকারিতা

সুস্বাস্থ্যের জন্য জেনে নিন ডাবের পানির ১০ উপকারিতা

ডিহাইড্রেশন : অতিরিক্ত গরমের ফলে শরীরে ঘামের সঙ্গে প্রয়োজনীয় পানি বেরিয়ে যায়। আবার কখনও অতিরিক্ত গরমে বমির ফলেও অতিরিক্ত পানি শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। প্রয়োজনীয় পানি শরীর থেকে বেরিয়ে যাবার ফলে ডিহাইড্রেশনের মত সমস্যা হয়। ডাবের পানি শরীরে এই পানির ঘাটতি পূরণ করে। এতে আছে কার্বোহাইড্রেড যা এনার্জি বাড়ায়।

ডিহাইড্রেশন : অতিরিক্ত গরমের ফলে শরীরে ঘামের সঙ্গে প্রয়োজনীয় পানি বেরিয়ে যায়। আবার কখনও অতিরিক্ত গরমে বমির ফলেও অতিরিক্ত পানি শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। প্রয়োজনীয় পানি শরীর থেকে বেরিয়ে যাবার ফলে ডিহাইড্রেশনের মত সমস্যা হয়। ডাবের পানি শরীরে এই পানির ঘাটতি পূরণ করে। এতে আছে কার্বোহাইড্রেড যা এনার্জি বাড়ায়।

ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণ করে : ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণ করতে ডাবের জল বেশ কার্যকরী। কারণ এতে আছে ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম ও ভিটামিন সি যা ব্লাড প্রেসারকে নিয়ন্ত্রণ করে। মনে রাখবেন ডাবের জল একটু মিষ্টি হয় তাই ডায়াবেটিসের সমস্যায় অতিরিক্ত না খাওয়াই ভালো।

ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণ করে : ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণ করতে ডাবের জল বেশ কার্যকরী। কারণ এতে আছে ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম ও ভিটামিন সি যা ব্লাড প্রেসারকে নিয়ন্ত্রণ করে। মনে রাখবেন ডাবের জল একটু মিষ্টি হয় তাই ডায়াবেটিসের সমস্যায় অতিরিক্ত না খাওয়াই ভালো।

হার্টের সমস্যা দূর করে : ডাবের পানি হার্টকে ভালো রাখতেও সাহায্য করে। হার্টকে ভালো রাখতে খাবারের তালিকায় ডাবের পানি যোগ করতে পারেন। এটা প্রমাণিত, ডাবের পানি হার্ট অ্যাটার্কের সম্ভবনা অনেকটা কমায়। এটি হাইপারটেনশনও কমায়।

হার্টের সমস্যা দূর করে : ডাবের পানি হার্টকে ভালো রাখতেও সাহায্য করে। হার্টকে ভালো রাখতে খাবারের তালিকায় ডাবের পানি যোগ করতে পারেন। এটা প্রমাণিত, ডাবের পানি হার্ট অ্যাটার্কের সম্ভবনা অনেকটা কমায়। এটি হাইপারটেনশনও কমায়।

মজবুত হাড় : হাড়কে মজবুত রাখার জন্য দরকার ক্যালসিয়াম ও আরো অনেক পুষ্টিগুণ। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, ডাবের পানিতে ক্যালসিয়াম আছে যেটা হাড়ের জন্য একটি অতি প্রয়োজনীয় উপাদান। এবং ম্যাগনেসিয়াম যেটা হাড়কে ভালো রাখতে সাহায্য করে।

মজবুত হাড় : হাড়কে মজবুত রাখার জন্য দরকার ক্যালসিয়াম ও আরো অনেক পুষ্টিগুণ। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, ডাবের পানিতে ক্যালসিয়াম আছে যেটা হাড়ের জন্য একটি অতি প্রয়োজনীয় উপাদান। এবং ম্যাগনেসিয়াম যেটা হাড়কে ভালো রাখতে সাহায্য করে।

ট্যান : বাইরের রোদ থেকে হওয়া সান ট্যানের সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে ডাবের পানি উপকারী। কারণ এটি প্রাকৃতিক ট্যান রিমুভারের মত কাজ করে। শুধু সান ট্যান নয় মুখের অন্য যে কোনো ব্লাক স্পট দূর করতেও সাহায্য করে।

ট্যান : বাইরের রোদ থেকে হওয়া সান ট্যানের সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে ডাবের পানি উপকারী। কারণ এটি প্রাকৃতিক ট্যান রিমুভারের মত কাজ করে। শুধু সান ট্যান নয় মুখের অন্য যে কোনো ব্লাক স্পট দূর করতেও সাহায্য করে।

  • টোনার : ডাবের পানি প্রাকৃতিক টোনার হিসেবে কাজ করে। এটি স্কিনে পিগমেনটেশন, ব্লেমিসেস দূর করে।

    টোনার : ডাবের পানি প্রাকৃতিক টোনার হিসেবে কাজ করে। এটি স্কিনে পিগমেনটেশন, ব্লেমিসেস দূর করে।

  • স্কিন ইনফেকশন : স্কিনের অন্যান্য সমস্যা বা ইনফেকশনের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে। এটি স্কিনের ইনফেকশন কমায়। কারণ ডাবের জলের আছে অ্যান্টিফাঙ্গাল ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ।

    স্কিন ইনফেকশন : স্কিনের অন্যান্য সমস্যা বা ইনফেকশনের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে। এটি স্কিনের ইনফেকশন কমায়। কারণ ডাবের জলের আছে অ্যান্টিফাঙ্গাল ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ।

  • অয়েলি স্কিনের সমস্যা : ডাবের জল ত্বককে চকচকে করার পাশাপাশি, এটি প্রাকৃতিক ময়েশ্চারের কাজ করে। এর পাশাপাশি ত্বক তৈলাক্ত হলে ত্বকের অতিরিক্ত তেলকে দূর করে। এবং স্কিনকে ময়েশ্চারাইজড করে।

    অয়েলি স্কিনের সমস্যা : ডাবের জল ত্বককে চকচকে করার পাশাপাশি, এটি প্রাকৃতিক ময়েশ্চারের কাজ করে। এর পাশাপাশি ত্বক তৈলাক্ত হলে ত্বকের অতিরিক্ত তেলকে দূর করে। এবং স্কিনকে ময়েশ্চারাইজড করে।

  • গ্লোয়িং স্কিন : আমরা হয়তো অনেকে জানি না গ্লোয়িং স্কিনের একটি রহস্য হল ডাবের পানি। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বককে ভেতর থেকে তরতাজা রাখে এবং ত্বক আস্তে আস্তে উজ্জ্বল হয়। যদি রোজ ডাবের পানি দিয়ে মুখ ধোয়া যায় তাহলে পার্থক্যটা নিজেই বুঝতে পারবেন।

    গ্লোয়িং স্কিন : আমরা হয়তো অনেকে জানি না গ্লোয়িং স্কিনের একটি রহস্য হল ডাবের পানি। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বককে ভেতর থেকে তরতাজা রাখে এবং ত্বক আস্তে আস্তে উজ্জ্বল হয়। যদি রোজ ডাবের পানি দিয়ে মুখ ধোয়া যায় তাহলে পার্থক্যটা নিজেই বুঝতে পারবেন।

  • চুলের সমস্যায় : ত্বকের সঙ্গে চুলের সমস্যা ও চুলকে ভালো রাখতেও ডাবের পানি উপকারী। ডাবের পানি স্ক্যাল্পে রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। তার ফলে চুল কম পরে। এছাড়াও ডাবের পানি প্রাকৃতিক কন্ডিশানারের কাজ করে। চুলকে রুক্ষ হয়ে যাবার হাত থেকে বাঁচায়। চুলকে চকচকে ও নরম রাখতে সাহায্য করে। খুসকির সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করে।

    চুলের সমস্যায় : ত্বকের সঙ্গে চুলের সমস্যা ও চুলকে ভালো রাখতেও ডাবের পানি উপকারী। ডাবের পানি স্ক্যাল্পে রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। তার ফলে চুল কম পরে। এছাড়াও ডাবের পানি প্রাকৃতিক কন্ডিশানারের কাজ করে। চুলকে রুক্ষ হয়ে যাবার হাত থেকে বাঁচায়। চুলকে চকচকে ও নরম রাখতে সাহায্য করে। খুসকির সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করে।

Check Also

রাশিফলে জেনে নিন কেমন যাবে নতুন বছর ২০১৯

মীন : নানা স্বপ্নপূরণের খবর নিয়ে আসছে নতুন বছর। এ বছর আপনি নেতা হয়ে উঠতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *