Thursday , October 18 2018
Home / আইন আদালত / খালেদার কুমিল্লার মামলাও বিচারিক আদালতে নিষ্পত্তির নির্দেশ

খালেদার কুমিল্লার মামলাও বিচারিক আদালতে নিষ্পত্তির নির্দেশ

ঢাকার ডাক ডেস্ক :   মিথ্যা তথ্য দিয়ে জন্মদিন পালন এবং জাতীয় পতাকা অবমাননার অভিযোগে ঢাকার দুই মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন সংক্রান্ত আবেদন বিচারিক আদালতে (নিম্ন আদালত) নিষ্পত্তির জন্য হাইকোর্টের দেয়া আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত।

একই সঙ্গে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন শুনানির জন্য আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠিয়ে দিয়েছেন। আগামী ২৫ জুন এ বিষয়ে পরর্বতী শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

অন্যদিকে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন, এজে মোহাম্মদ আলী এবং এ সময় উপস্থিত ছিলেন ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, বদরোদ্দোজা বাদল, কায়সার কামাল, এম. আতিকুর রহমান, একেএম এহসানুর রহমান ও অ্যাডভোকেট মাসুদ রানা।

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সাংবাদিকদের জানান, ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুটি কমপ্লেইন কেইস করা হয়েছিল। দুটি কেইসেই তাকে আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছিল। জেলে থাকাবস্থায় দুটি কেইসেই জামিনের দরখাস্ত করেন এবং শোন অ্যারেস্ট দেখানোর আর্জি জানান। সেখানে পেইন্ডিং মামলায় জামিন নিতে হাইকোর্টে আসেন খলেদার আইনজীবীরা। হাইকোর্ট মামলাগুলো নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। হাইকোর্টের দেয়া আদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের একটি আবেদন আজ চেম্বার আদালতে শুনানি হয়েছে। আদালত আজ হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেননি। তবে, লিভ টু আপিল নিষ্পত্তি করার জন্য নিয়মিত বেঞ্জে আগামী ২৫ জুন তারিখ ঠিক করেছেন।

মাসুদ রানা সাংবাদিকদের বলেন, আপিল বিভাগে রাষ্ট্রপক্ষের সিপি (লিভ টু আপিল) বিচারাধীন। এ কারণে ম্যাজিস্ট্রেট আদালত খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন নিষ্পত্তিতে বিলম্ব করতে পারে। এ বিষয়টি আমরা আদালতের নজরে এনেছিলাম। চেম্বার আদালত তখন হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখার পাশাপাশি ম্যাজিস্ট্রেট আদালতকে খালেদা জিয়ার আবেদন নিষ্পত্তি করার আদেশ দিয়েছেন চেম্বার জজ আদালত।

গত ৩১ মে ওই দুই মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন নামঞ্জুর করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে দুই বিচারিক আদালতে খালেদা জিয়ার আবেদন নিষ্পত্তির নির্দেশ দেন। খালেদা জিয়ার জামিন সংক্রান্ত দুটি পৃথক আবেদন নিষ্পত্তি করে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

রাজাকারদের মদদ দেয়া ও ভুয়া জন্মদিন পালনের অভিযোগে মামলা দুটি করা হয়। ২০১৭ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর তেজগাঁও থানার ওসি (তদন্ত) এ বি এম মশিউর রহমান যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দেয়া সংক্রান্ত মামলায় প্রতিবেদন জমা দেন।

২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর এ বি সিদ্দিকী স্বীকৃত স্বাধীনতাবিরোধীদের গাড়িতে জাতীয় পতাকা তুলে দিয়ে দেশের মানচিত্র ও জাতীয় পতাকার মানহানি ঘটানোর অভিযোগে ঢাকার সিএমএম আদালতে একটি মামলা করেন। এছাড়া ১৫ আগস্ট ভুয়া জন্মদিন পালনের অভিযোগে ২০১৬ সালের ৩০ আগস্ট একই আদালতে একটি মামলা করেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী জহিরুল ইসলাম।

Check Also

সিমসহ আটক শফিকুলকে ছাড়ার কারণ জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

ঢাকার ডাক ডেস্ক  :    সাংবাদিক ফরহাদ খাঁ দম্পতি হত্যা মামলায় সিমসহ আটক শফিকুলকে ছেড়ে দেয়ার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *