Home / Uncategorized / নয়ন তোমারে পায় না দেখিতে রয়েছ নয়নে নয়নে

নয়ন তোমারে পায় না দেখিতে রয়েছ নয়নে নয়নে

সাদিয়া আক্তার :

প্রিয় বাবা,
কোথায় আছো বাবা তুমি? জানি না আজ কতদূর? আজ খুব বেশি মনে পড়ছে তোমায়। মনে পড়ছে তোমার সেই স্পর্শমৃত দিনের কাছে ডাকা, মধুর সুরে আদুরে আদুরে ডেকেছিলে বাবা তুমি আমায়, ডেকেছিলে উচ্ছল উদার মাখানো মমতায়। বাবা তুমি তো জানো? আমি তোমাকে কখনো চাচা মনে করিনি; আমি তোমাকে বাবা বলে ডাকি। তুমিও কখনো আমাকে ভাইয়ের মেয়ে মনে করোনি। কে বলে জন্ম না দিলে বাবা হওয়া যায় না? জন্ম না দিলেও যে, প্রিয় বাবা হওয়া যায় তোমাকে না দেখলে জানতাম না। তোমার স্নেহ, ভালবাসা আর মিষ্টি সুরে ‘মনি’ বলে ডাকা কতদিন শুনিনি। ও বাবা আমি যে তোমাকে খুব ভালবাসি,খুবই ভালবাসি। কিন্তু মুখে কখনো বলতে পারিনি। আমি খুব রাগ করি বলে তুমি আমার রাগ করতে বারণ করেছিলে। আমি আর কখনো কারোর উপরে রাগ করবো না কথা দিচ্ছি। তোমাকেও কথা দিতে হবে তুমি ফিরে আসবে। অনেকে বলে আপনজন মারা গেলে দুদিন পরেই মানুষ ভুলে যায়, কিন্তু আমি তো তোমাকে একদিনের জন্যও ভুলতে পারিনি। তুমি আমার আপনজন নও? তুমি আমার আত্মার আত্মীয়। আমি আমার সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করি যেন তোমাকে আর একটি বার দেখতে পাই, ছুঁতে পারি। তোমার অনুপস্থিতি আমাকে খুব নাড়া দেয়। তোমার সঙ্গে একটি মাস থাকাটা যেন আমার সারাজীবনের অর্জিত সম্পদ। আর সেই থাকাটাই ছিল তোমার-আমার শেষ দেখা। তুমি অসুস্থ ছিলে আর ভুল বকছিলে, কিন্তু আমি চলে যাবার সময় তোমাকে বলতে, তুমি বললে সাবধানে যেও, আমার জন্য চিন্তা করো না। সত্যিই আমাকে তুমি চিন্তা করতে দাওনি, চিন্তার দানা মাথায় বাধার আগেই তুমি চলে গেলে না ফেরার দেশে। কেন গেলে? তোমার চলে যাওয়াটা কি খুব দরকার ছিল? তোমার চলে যাওয়াকে আজও আমি মেনে নিতে পারি না। দেখতে দেখতে কখন যে একটি বছর পার হয়ে গেল বুঝতে পারিনি। মনে হচ্চে এই সেদিন তুমি আমাকে পরীক্ষার হলে পৌঁছে দিলে, আমার পরীক্ষা কেমন হল, জানলে। বাবা, এই শীতে কেউ তো আমাকে বলেনি কম্বলের ভিতরে গিয়ে পড়, এখানে বসে কষ্ট করিস না। জানো? আমি আজ পর্যন্ত তোমার কবর দেখতে যায়নি। যাকে দিনের বেলাই একটুও শুয়ে থাকতে দেখিনি, আজ সে মাটির বিছানায় শুয়ে আছে। কি করে দেখবো? বড়ো কষ্ট হয় যে, তাই আর যাইনি, তুমি রাগ করো না। তুমি আমার প্রতিটি মূর্হুতে মিশে আছো। প্রতি রাতে তোমাকে ভেবে চোখের জলে বালিশ ভিজায়, তুমি কি তা জানো? বাবা তুমি কেমন আছো? নিশ্চয় ভালো আছো, তুমি ভালো থাকবে বলেই তো আমাদেরকে ছেড়ে চলে গেলে! সত্যিই কি তুমি ভালো আছো? তুমি কি এখনোও তোমার মেয়েদেরকে নিয়ে ভাবো? আমি ভাবি তুমি রোজ অফিস থেকে আসার মত ফিরে আসবে আর বলবে মনি ব্যাগটা ধর, মোটর সাইকেল চালিয়ে আসতে আজ খুব কষ্ট হয়েছে, আমাকে একটু ঠান্ডা পানি দে। আজ এক বছর হল কই তুমি তো এলে না, কিছু বললে না। তুমি চলে আসো, তোমাকে ছাড়া আমাদের খুব কষ্ট হচ্ছে। স্বজন হারানোর ব্যথা যে এত তীব্র, তোমাকে না হারালে বুঝতে পারতাম না। তুমি ফিরে আসো কাকা, আমার খুব কষ্ট হচ্ছে, ফিরে আসো।

Check Also

মিজান খানের দু’টি কবিতা

তাদের জন্য সব কবিতা কাব্য হলেও কয় না মনের কথা, গয়না সাজা বৌকে দেখে যায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *