Home / ২০১৯-২০ অর্থবছরে রেলের আয় কমলো প্রায় ৩৯০ কোটি টাকা

২০১৯-২০ অর্থবছরে রেলের আয় কমলো প্রায় ৩৯০ কোটি টাকা

স্টাফ রিপোর্টার : করোনা ভাইরাস মহামারিতে অন্য সব খাতের মতো রেলের আয়েও প্রভাব পড়েছে। যাত্রী ও পণ্য পরিবহন— দুই সূচকেই কমেছে আয়।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রেলে সুদূরপ্রসারী কোনো পরিকল্পনা নেই। এক দফতরের সঙ্গে অন্য দফতরের সমন্বয়হীনতাও রয়েছে। চলমান ট্রেনগুলোতে যথাযথ কিংবা অতিরিক্ত কোচ সংযুক্ত করে চালালে ব্যয় কমতো এবং আয় বাড়তো।

রেলের তথ্য বলছে, করোনাকালে যাত্রী পরিবহন কমেছে ৩১ শতাংশ আর পণ্য বহন ২০ শতাংশ। ফলে প্রতিদিন প্রায় সাড়ে ৪ কোটি টাকা লোকসান গুনতে হয় রেলকে।

২০১৮-১৯ অর্থবছরে রেল আয় করেছে ১ হাজার ৫৯০ কোটি ১০ লাখ টাকা। ২০১৯-২০ অর্থবছরে আয় করে ১ হাজার ২০০ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। অর্থাৎ আয় কমেছে ৩৮৯ কোটি ৭৭ লাখ টাকা।

জানা গেছে, রেলের প্রায় সব ট্রেনই কোচ স্বল্পতা নিয়ে চলছে। এগুলোতে যথাযথ কোচ ব্যবহার করা হলে অন্তত আরও এক হাজার কোচ বাড়তো। এতে অতিরিক্ত প্রায় ৬৪ হাজার যাত্রী বহন করা সম্ভব হতো। ফলে রেলের লোকসান কমতো।

দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় গত ২৬ মার্চ থেকে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। দুই মাস পর ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে ট্রেন চালু করা হয়। প্রথম দিকে ট্রেন চালু হলেও ৫০ শতাংশ যাত্রী নেওয়ার বাধ্যকতা ছিল। ফলে রেলে লোকসানের পরিমাণ বাড়তে থাকে।

জানতে চাইলে রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. শামছুজ্জামান বলেন, ‘রেল একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। আয় লোকসান মুখ্য বিষয় নয়। তবে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের তুলনায় ২০১৯-২০ অর্থবছরে আয় কমেছে অনেক। কোচ পেলে চলমান ট্রেনগুলোতে অতিরিক্ত কোচ সংযুক্ত করে লোকসান কিছুটা কমানো যেতো। ’